হেল্প লাইন +৮৮ ০১৯৮৪৪১৪১২০
( শনিবার-বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা-সন্ধ্যা ৬ টা )

বেটা সংস্করণ

আমার দেশ ই-শপ

বাংলাদেশ ম্যাপ
খোঁজ
আইটেম 0.00৳

ই-শপ সম্পর্কে জানুন

ই-কমার্স কি?

ই-কমার্স একটা আদর্শ ব্যবসা অথবা একটা বৃহত্তর আদর্শ ব্যবসার অংশ, যেটা যে ভাবে ইন্টারনেটে কাজ হয় ঠিক সে ভাবেই ইকেলট্রিনিক নেটওয়ার্কের মাধ্যমে একক বা দলগত ব্যবসা পরিচালনা করে। বাজারের প্রধান ৪ টা অংশই পরিচালনা করে ইলেকট্রনিক কমার্স ব্যবসা থেকে ব্যবসা, ব্যবসা থেকে ক্রেতা, ক্রেতা থেকে ক্রেতা, এবং ক্রেতা থেকে ব্যবসা। ক্যাটালগ থেকে মেইলে অর্ডারের মাধ্যমে কোন কিছু বেশ আধুনিকতম উপয় বা পন্থা বলে বিবেচনা করা যেতে পারে। বেশীরভাগ পণ্য বা সেবা ই কমার্সের মাধ্যমে দেয়া যেতে পারে। যেমন বই গান বাজনা থেকে শুরু করে টাকা পয়সার ব্যাপার এমনকি প্লেনের টিকিট ও স্থানীয় বাজার পার্যায়ে ই-শপ প্রতিষ্ঠা করায় গ্রামীন বাংলাদেশের উদ্যোক্তারা ই-কমার্স এর মাধ্যমে উৎপাদনকারী ও ক্রেতার মধ্যে যোগসুত্র স্থাপন করতে পারছে। এখানে কোন মধ্যস্থত্ত্বভোগী নাই। এতে করে দুজনই লাভবান হচ্ছে।
মধ্যবর্তী উদ্দেশ্য গুলি অর্জনের জন্য ই-কমার্স প্রধান হাতিয়ার । অদক্ষ গ্রামীন সম্প্রদায় যেমন- গ্রামীন মহিলা উদ্যোক্তা, অল্পবয়সী তরুন উদ্যোক্তা, তাঁতী সম্প্রদায় ও সুবিধা বঞ্চিত জনগন এদেরকে নিয়ে উন্নয়নের প্রতিযোগীতার নূতন কোন সমাধান দেয় ই-কমার্স।

ই-শপ

আমার দেশ আমার গ্রাম এই ধরনের প্রথম প্রকল্প যেটা জানে কেমন করে স্বল্প আয়ের দল থেকে কমপউটার ও ওয়েব ব্যবহারের সুবিধা নিতে হয় এবং ক্ষমতায়িত করতে হয়। সম্ভাবনাসহ যেটা তারা আগে কখনও পায় নাই। এই প্রকল্প ডিজিটাল বাংলাদেশের একটি বাস্তব সম্ভাবনা, এই প্রকল্প দেশের আনাচে-কানাচে অসংখ্য মানুষের জীবন পরিবর্তনের জন্য ডিজিটাল টেকনোলজি বাংলাদেশের উৎপাদনকারীদের কাছ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারের সুযোগ সৃষ্টি হয়। বর্তমানে মংলার দূরবর্তী এলাকা থেকে জেলেরা মাছ বিক্রি করছে ঢাকা শহরের কেন্দ্রস্থলে মহিলারা ঘরে বসে সাধারন হাতের কাজ করছে, এবং তারা তাদের কাঁথা সারা বাংলাদেশে এবং এমনকি বিদেশেও বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করছে
কৃষকেরা সতেজ শাক-সবজি উৎপাদন করছে এবং শহরের বাজারে সরবরাহ করছে। এখানেই শেষ নয়। কিছু কেন্দ্র যেগুলোর এই সরবরাহ চেইন নিয়ন্ত্রীত হয় কিছু যুবকের দ্বারা যারা ই-কমার্সে প্রশিক্ষিত তারা নিজেরাই একে অন্যকে শিখায়। স্কুলগুলো বিনামূল্যে সফট্ওয়ার দেয় যাতে করে ছাত্ররা উপকৃত হয় এবং পৃথিবী ব্যাপী ডিজিটাল টেকনোলজীর যগে তাদের জন্য একটা বাস্তবতা এই অসামান্য ও বানিজ্য ভিত্তিক দারিদ্রতা দূরিকরণ প্রকল্প শুধুমাত্র ক্ষমতায়নই করে নাই, যুবকদের মধ্যে সৃষ্টি করেছে একটা নূতন উদ্যেক্তা প্রজন্ম, যারা আত্মনির্ভরশীল হওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে। আমার দেশ আমার গ্রাম প্রধান প্রকল্প এবং টেকনোলজিক্যাল সহায়তা দিবে এফ, এস, বি (ফীউচার সলউশন ফর বিজনেজ) লি: